রঙঢঙ

হেমন্ত মানেই আরামদায়ক পোশাক

হ্যালোডেস্ক

হেমন্তের আগমনে প্রকৃতি যেন চুপ মেরে যায়। প্রকৃতিতে পাতা ঝড়ার দিন যেন হেমন্তকে ঘিরে। ইতোমধ্যে সবুজে ছাওয়া গাছগুলো মলিন হয়ে যেন মাটির সঙ্গে মিশে যেতে চাইছে। অর্থাৎ গাছের পাতাগুলো কি এক অভিমান নিয়ে যেন ঝড়ে পড়ছে। কবির ভাষায় কথাগুলো এমন দাঁড়ালেও এটাই প্রকৃতির নিয়ম। প্রকৃতি জানান দিচ্ছে শীত সমাগত। ইতোমধ্যে সকাল বেলার হালকা কুয়াশা এবং শিশির ভেজা ঘাস শীতের আগমনী বার্তার জানান দিচ্ছে বার বার। মৃদুমন্দ হিমেল হাওয়া মনকে আন্দোলিত করে তোলে। এমন সকালে আড়মোড়া ছেড়ে বিছানা ছাড়তে কারই বা মন চায়। কিন্তু কর্মব্যস্ত জীবনে সে ফুরসত মেলা বড় দায়।

দিন যত গড়াচ্ছে ততই এগিয়ে যাচ্ছে পৃথিবী। এর তাল মিলিয়ে চলতে গেলে ঘরে বসে থাকার কোন উপায় নেই। প্রকৃতির এ পালাবদল কিংবা নয়নাভিরাম দৃশ্য ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও চোখ মেলে উপভোগ করা হয়ে ওঠে না। তবে আবহাওয়ার পরিবর্তন দেখার সুযোগ না হলেও শরীরের স্বাচ্ছন্দ্যই বলে দেয় পরিবর্তিত হচ্ছে ঋতু। অর্থাৎ গরমকাল পাশ কাটিয়ে যখনই হিমেল হাওয়া বইছে তখনই শরীর জানান দিচ্ছে গায়ে গরম কাপড় জড়ানোর। তবে এখনও সেভাবে শীত পড়েনি বলে হালকা গরম পোশাকই এখন প্রাধান্য পাবে। আর সময়োপযোগী কাপড় নিয়ে এখন আগের মতো টেনশন করতে হয় না। হাতের কাছেই মিলবে ফ্যাশনেবল হালকা শীতের পোশাক। শীতকাল মূলত ফ্যাশনের অন্যতম একটা ঋতু। এ সময়ে ঘুরে-ফিরে বেশ মজা। তাছাড়া বিয়েশাদি থেকে শুরু করে বিভিন্ন উৎসব যেন এ সময়টাতে প্রাধান্য পায় বেশি। আর এ উৎসবে অংশ নিয়ে চলে উৎসব অনুযায়ী পোশাকের খোঁজখবর। সব মিলিয়েই এ সময়ে সময়োপযোগী পোশাকের কদর বেড়ে যায়। অফিসে যাওয়া, বন্ধুদের আড্ডা কিংবা ক্যাম্পাসে যেখানেই হোক কেন স্থান কাল ও অবস্থান ভেদে আবহাওয়া উপযোগী পোশাকের সমাহার এখন বেশির ফ্যাশন হাউসেই দেখা মিলবে। তবে পোশাকের আপডেটের ব্যাপারে তরুণ প্রজন্মের আগ্রহ সবচেয়ে বেশি। এ কারণে ফ্যাশন হাউসগুলোও তরুণদের কথা মাথায় রেখে তাদের পসরা সাজিয়ে রাখছে।

এ সময়টায় ফুলহাতা পোশাকের সমাহার বেশি। বিশেষ করে টি-শার্ট, হুডি টি-শার্ট, টপস ও জিন্স অন্যতম। তরুণদের কথা মাথায় রেখে ব্যবসায়ীরা কালারফুল ড্রেস বাজারে নিয়ে এসেছে। এর মধ্যে নিত্য উপহার, ইজি, ট্রেক্সমার্ট, স্মার্টেক্স, প্লাস পয়েন্ট, আরশী, ভিসা, ইয়েলো, রেক্স অন্যতম। হালকা শীতে ফুলস্লিভ টি-শার্ট অনায়াসে মানিয়ে যায়। দামও হাতের থাকে নাগালে।

সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলা ছাড়া এখন যেন আর কোন উপায় নেই। তাই চলার পথের পোশাকটিও যদি হয় মানানসই তাহলেই কথাই নেই। আর ফ্যাশন হাউসগুলো সেসব পোশাকের সমাহার নিয়েই বসে আছে। এখন শুধু পছন্দসই পণ্যটি কেনার অপেক্ষা।

ছবি     : নাফিজ আলী রাজু
মডেল : ফারহানা রহমান তিশা

ফেসবুক পেজ

আর্কাইভ

ক্যালেন্ডার

ডিসেম্বর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« নভেম্বর    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১