ঋতুর সাজ

গরমের আরাম পোশাকে

  মডেল: ইসরাত জাহান মনি

হ্যালোডেস্ক।।  গরমের রকমের শেষ নেই এদেশে। চৈত্রে কাঠফাটা রোদ, বৈশাখে শুরু গ্রীষ্মকাল। আসে কাঁঠাল পাকানো জ্যৈষ্ঠ। আরও আছে তাল পাকানো ভাদ্র মাস। গরমে আরাম পেতে ফ্যাশনপ্রেমীরা খোঁজেন হালকা ধরনের পোশাক। কোন কাপড়ে পাওয়া যায় একটু আরাম-সে ধরনের কাপড়ই আমরা গরমে খুঁজে ফিরি।

এই গরমে আরাম পাওয়ার জন্য পোশাক নির্বাচনে আলাদা গুরুত্ব দেওয়ার কোনো বিকল্প নেই। তবে গরমে পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে স্বস্তির পাশাপাশি সৌন্দর্যটাকেও খেয়াল রাখতে হবে। এ জন্য সুতি কাপড়ের ওপর ব্লকপ্রিন্ট, এমব্রয়ডারি, স্ক্রিন প্রিন্ট ও হালকা সুতার কাজের পোশাক পরা যায়। সুতি কাপড় কিনে নিজের পছন্দ মতো ডিজাইন, লেস, বোতাম, ইয়োক দিয়ে তৈরি করে নিতে পারেন আপনার গরমের পোশাক। লেস, বোতাম, ইয়োক ব্যবহারে নান্দনিকতা পাবেন পোশাকে।

গরমে ঘুরে বেড়াতে বা দৈনন্দিন কাজে ভারি বা লম্বা চওড়া সালোয়ার-কামিজের চেয়ে অনেকের কাছে ওয়েস্টার্ন পোশাক স্বাচ্ছন্দ্যের। ওয়েস্টার্ন পোশাকে যেমন স্বস্তিদায়ক, তেমনি ফ্যাশনটাও ঠিক থাকে। ওয়েস্টার্ন মানেই যে দৃষ্টিকটু কিছু তা কিন্তু নয়। কারণ এখন আমাদের দেশে ওয়েস্টার্ন প্যাটার্নের সঙ্গে দেশীয় কাটছাঁট যোগ করে তৈরি করা হচ্ছে এ ধরনের পোশাক। তাই টিন থেকে তরুণীরা গরমে টিউনিক, টপস, টিউনিক শার্ট, স্কার্ট, ফতুয়া, ম্যাক্সিড্রেস বা কুর্তা বেছে নিতে পারেন অনায়াসে। প্যান্টটপ পালাজ্জো, টিউলিপ, এক ছাঁটে তৈরি স্ট্রেট প্যান্ট, ক্যাপ্রি প্যান্ট, সিগারেট প্যান্ট, গ্যাবার্ডিন, জিন্সসহ যে কোনো ধরনের বটমের সঙ্গেই মানিয়ে যায় বলে, এ ধরনের পোশাকে ঝামেলাও কম।

টপস, লং স্কার্ট, টিউনিক, কেইপ, ম্যাক্সিড্রেসে ঘুরে-ফিরে এখন লং প্যাটার্ন দেখা যাচ্ছে। প্রজাপতি প্যাটার্ন টিউনিক খুব চলছে। বেশি ঘেরের ফোলানো লং স্কার্ট আর সেমি লং টপস দারুণ জনপ্রিয়। হাঁটু সমান বা তার থেকে লম্বা টপসও এখন অনেকেই পরছেন। কোমরে কুঁচি, প্লিট, ইলাস্টিক, বেল্ট ব্যবহারে ভিন্নতা আনা হয়েছে অনেক পোশাকে। ফ্লোরাল প্রিন্টের সুতি লং স্কার্ট এ আবহাওয়ায় আরাম দেবে। হালফ্যাশনে টিউনিক, টপস, টিউনিক শার্ট, পালাজ্জোতে এসেসট্রিক কাট অর্থাৎ পোশাকের পেছনে লম্বা এবং সামনের খাটো কাট ট্রেন্ডি কাট হিসেবেও পরিচিত। টপস ও কুর্তিতে গর্জিয়াস লুক আনতে ব্যবহার হচ্ছে ব্লক, লেইস ও পাথরের ব্যবহার। গরমে শিফন, শাটিন, জর্জেট, সিল্ক, নেট এবং সুতি কাপড়ের ওয়েস্টার্ন পোশাক আরামদায়ক হবে।

হাতার ক্ষেত্রে রয়েছে কোল্ড শোল্ডার, অফ শোল্ডার, বেল বটমসহ আরও নানা ধরনের হাতা! নতুনত্ব এসেছে নেক লাইনেও। বড় গোল গলা থেকে শুরু করে বোট নেক, ব্যান্ড কলার, হাইনেক সবই পাওয়া যাবে। কুর্তি, টপস, টিউনিক ও ফ্রকে বেড়েছে ফ্লেয়ার এবং ফ্রিলের ব্যবহার। ওয়েস্টার্ন পোশাকের সঙ্গে চাইলে স্কার্ফ বা ফেন্সি ওড়না ব্যবহার করে নতুনত্ব আনতে পারেন। আর অবশ্যই এ ধরনের পোশাক পরার আগে মনে রাখতে হবে পোশাকটি আমাদের রুচি, সংস্কৃতি ও সমাজের সর্বক্ষেত্রে গ্রহণযোগ্য কিনা এবং আমাকে মানাচ্ছে কিনা।

সফট কালার এ সময় বেশি আরামদায়ক। সাধারণ রঙের একটু হালকা বা ফিকে, কোমল রঙগুলো, যেমন-ফিকে হলুদ, উজ্জ্বল হলুদ, ঘিয়া, হালকা সোনালি, বাদামি, কফি, জলপাই সবুজ, পেস্ট, বেবি পিংক, বাঙ্গি, আকাশি নীল, বেবি ব্লু, সমুদ্রের নীল, লাইট চকলেট এবং ঘুরে-ফিরে সাদা রঙের পশ্চিমা পোশাক এ ঋতুতে ভিন্ন সৌন্দর্য ফুটিয়ে তুলবে আপনার লুকে। কারণ গরমে নরম বুননের এই ফ্যাকাশে বা ন্যুড রংগুলো এত স্নিগ্ধ এবং কোমল হয়ে ওঠে যে গরমের ফ্যাশন হিসেবে এই রঙগুলোর রয়েছে বিশ্বজোড়া স্বীকৃতি।

গ্যাবার্ডিন প্যান্টের সঙ্গে জর্জেটের গলায় চওড়া প্লিট বসানো টিউনিক কোমরে গুঁজে আনতে পারেন নতুনত্ব। সাটিং, জর্জেট কিংবা সিল্কের প্রিন্টের স্লিভলেস কুর্তি, কোমরে কুঁচি দেয়া অফ শোল্ডার টপস, টিউনিকের সঙ্গে হালকা সাজে খোলা চুলে মাথায় রোদটুপি পরে এ সময় নদীর ধার, কাশবন কিংবা সুন্দর কোনো জায়গায় ঘুরে বেড়াতে পারেন স্বাচ্ছন্দ্যে। দেখতেও দারুণ লাগবে। এ ধরনের সাজপোশাকের সঙ্গে যদি পথের ধার থেকে কোনো বুনো ফুল তুলে কানে গুঁজে দেন বা হাতে পেঁচিয়ে রাখতে পারেন তবে তার সৌন্দর্য আর আনন্দই হবে ভিন্নরকম।

ক্যাজুয়াল ড্রেস আর ফর্মাল ড্রেসের সাজ অবশ্যই ভিন্ন হবে। ওয়েস্টার্ন পোশাকের সঙ্গে হালকা সাজই মানানসই। এই ধরনের পোশাকের সঙ্গে টিপ আর ভারি আইশ্যাডো ততটা মানানসই নয়। হেয়ার স্টাইলের ক্ষেত্রে দিনের বেলা চুল পনিটেইল করলে কিংবা কার্ল বা রোলার করে ছেড়ে রাখলে ভালো লাগবে।

ফরমাল ওয়েস্টার্ন পোশাকের সঙ্গে ছোট অনামেন্টস ভালো লাগবে। ক্যাজুয়ালে যেমন-টপস, টিউনিক, শার্ট, স্কার্টের সঙ্গে রঙিন গয়না ভারি চমৎকার দেখায়। গলায় অনেক লহর তোলা রঙিন পুঁতির মালা, হাতে চিকন ব্রেসলেট মানাবে। আবার ছোট্ট একটি লকেট দেয়া চেইনও ভালো দেখাবে। সঙ্গে এক পাথরের ছোট্ট কানের টপের মতো সিম্পল গহনা স্নিগ্ধতা নিয়ে আসবে। এমন সাজপোশাকের সঙ্গে কাপড়ের রং আর নরম বুননে মনটা একেবারে ফুরফুরে হয়ে ওঠে। যার পরশে স্বাচ্ছন্দ্যে কাটবে সারাবেলা।

ওয়েস্টার্ন পোশাকের তালিকায় ড্রেসিডেল, আইকনিক ফ্যাশন গ্যারেজ, সেইলর, ইনফিনিটি, রঙ বাংলাদেশের ওয়েস্ট রঙ, ইয়াংকে, ইয়োলো, লা-রিভসহ বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস এখন জনপ্রিয়। পাশাপাশি যমুনা ফিউচার পার্কসহ বিভিন্ন শপিংমল তো রয়েছেই।

মডেল: ইসরাত জাহান মনি

Add Comment

Click here to post a comment

ফেসবুক পেজ

আর্কাইভ

ক্যালেন্ডার

July 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031