সাহিত্য

ঝাঁপি খুলে আলোয় এলো বুনো বাতাসের গল্প

হ্যালোডেস্ক

০৫ অক্টোবর ২০২১


প্রচলিত আয়োজন বা আমন্ত্রণের ঘনঘটা কিংবা আড়ম্বরতা কিছুই ছিল না। খুব নিরবেই ঝাঁপি থেকে বেরিয়ে আলোয় এলো বুনো বাতাসের গল্প।

গত চব্বিশ সেপ্টেম্বর’২০২১ তারিখ শুক্রবার সন্ধ্যায় সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রের একটি সভা কক্ষে সীমিত পরিসরে বুনো বাতাসের গল্পের মোড়ক খুলেন কবি ও কথাসাহিত্যিক ঝর্না রহমান। তিনি ছিলেন বুনো বাতাসের গল্পের সুযোগ্য অভিভাবক।

বুনো বাতাসের গল্পের ভাবনা, গল্প সংগ্রহ ও সম্পাদনার কাজটি আমার হলেও নিজ থেকে বইটি প্রকাশের দায়িত্ব নিয়েছিলেন ইউনাইটেড নিউজ টোয়েন্টিফোর ডট কম-এর প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও প্রকাশক আ হ ম ফয়সল। গত ৩০’এপ্রিল হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি ওপারে চলে যান। তাই বইটি প্রকাশের আনন্দ অনেকটাই ম্লান হয়ে যায়। মুলত সেকারণেই বইটি নিয়ে হৈচৈ করার মানসিকতা একেবারেই ছিল না। কিন্তু আ হ ম ফয়সল চেয়েছিলেন সকল লেখককে নিয়ে একটি আড্ডার আয়োজন করবেন। আর আমি চেয়েছিলাম ইউনাইটেড নিউজ২৪ এর ব্যানারে তাঁর একটি স্মরণসভা করতে। অতঃপর আনন্দ-বেদনার দোলাচলে সীমিতভাবে বুনো বাতাসের গল্পে স্মরণ করা হয় ফয়সল ভাইকে। বলেন, সম্পাদক তাহমিনা শিল্পী।

যাদের আন্তরিক উপস্থিতিতে আড্ডা প্রাণবন্ত হয়েছিল তারা মুলত বুনো বাতাসের গল্পের, অভিভাবক, লেখক, ইউনাইটেড নিউজ২৪ পরিবারের সদস্য এবং বুনো বাতাসের গল্পের আপনজন, স্বজন।

আড্ডাটি সাবলিল উপস্থাপনা করেন বাচিক শিল্পী রূপশ্রী চক্রবর্তী। শুরুতেই প্রয়াত আ হ ম ফয়সল -এর স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। এবং তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া করা হয়। এরপর কথাশিল্পী ঝর্না রহমান বুনো বাতাসের গল্পের সফল যাত্রা সম্পর্কে বিশদ আলোচনা করেন। চমৎকার রিভিউ পাঠ করেন উদিয়মান তরুণ গল্পকার রনি রেজা। একুশে পদক প্রাপ্ত বরেণ্য ছড়াকার রহীম শাহ, কবি মতিউর রহমান গাজ্জালি, প্রতিভা প্রকাশের প্রকাশক, কবি মঈন মুরসালিন অভিনন্দন জানান সম্পাদক তাহমিনা শিল্পীকে। বুনো বাতাসের গল্পের লেখকদের মধ্য থেকে মিলা মাহফুজা, নূর কামরুন নাহার, প্রণব মজুমদার, শামসুদ্দিন হীরা ও মেহেরুন নেছা রুমা সহ কয়েকজন তাদের অনুভূতি, আবেগ ও অভিজ্ঞতা ভাগ করে নেন সবার সাথে।পাশাপাশি প্রত্যেকেই শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন প্রয়াত আ হ ম ফয়সলকে।

সভায় আ হ ম ফয়সলকে স্মরণপর্বে আলোচনায় অংশ নেয় ইউনাউটেড পরিবারের সদস্যরা। তারা বেদনা ভারাক্রান্ত মনে আ হ ম ফয়সলকে স্মরণ করে আগের মতই ইউনাইটেড নিউজ২৪ এর সাথে আন্তরিকতা ও আস্থার সাথে কাজ করবেন বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। এরপর আবেগি বক্তব্য রাখেন আ হ ম ফয়সল-এর পুত্র সামিন এবং স্ত্রী সালেহা বেগম।সালেহা বেগম তাঁর স্বামীর স্বপ্ন ধরে রাখতেই পত্রিকাটি চালিয়ে নেবার যথাসম্ভব চেষ্টা করবেন জানিয়ে সকলকে তার সারথি হবার আহ্বান জানান এবং সর্বাত্মক সহযোগিতা চান।

সবশেষে সম্পাদক তাহমিনা শিল্পী তার বক্তব্য জানান বুনো বাতাসের গল্পের পিছনের গল্প, প্রকাশের গল্প। এবং বিভিন্ন স্মৃতিকথায় কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করেন প্রকাশক আ হ ম ফয়সলকে। তিনি বইটির সকল লেখক, সহযোগী ও শুভাকাঙ্খিদের আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

মুলত বুনো বাতাসের গল্প তাহমিনা শিল্পী সম্পাদিত দুই বাংলার স্বনামধন্য বত্রিশজন গল্পকারের লেখা বত্রিশটি গল্পের একটি সংকলন। ২০২০ সালে করোনাকালের শুরুর দিকে এর যাত্রা শুরু হয়। প্রতেকটি গল্প ইউনাউটেড নিউজ টোয়েন্টিফোর ডট কমে প্রকাশের পর সংশোধন, সংযোজন ও পরিমার্জনের পর ইউনাইটেড টোয়েন্টিফোর ডট কমের স্পন্সরশীপে প্রকাশ করেন প্রয়াত আ হ ম ফয়সল। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন রাজিব রায়। প্রকাশ করেছে অনির্বাণ প্রকাশনি। বইটির অনলাইন বিক্রতা কানামাছি ডট কম, মুদ্রণ মুল্য দুই শত টাকা।

ফেসবুক পেজ

আর্কাইভ

ক্যালেন্ডার

July 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031