কবিতা

নীলাভ জোসনার সুখ

সাময়িকী: শুক্র ও শনিবার

-সোহাগ সিদ্দিকী

স্বপ্ন এসে বলেছিল,
যতনে চুঁয়াচন্দনে সাজাও আমাকে
সিঁড়ি বেয়ে ছুঁয়ে দেবে আমার আলোক
আমি যে বেভুল এক হতচ্ছাড়া
অগোছালো স্বপ্নের শরীরে,
ধুলো আর মরিচিকা ইচ্ছেমতো সাজে।
সময় যথার্থ বলেছিল,
তোমার সাথেই আছি স্বাধীন আশায়
কিস্তিমাত হোক যতো কাঞ্চন কামিনী
সাহসের চাবুক চালে।
ফুল ফোটা মানুষের মুখ দেখে দেখে
পারিনি আড়াই চালে ঘোড়াটা ছুটাতে
ঠোঁটের কোনায় এনে শেয়াল হাসিতে
সময় ছেড়েছে হাত।
লীনুয়াও বলেছিল
যেওনা ছেড়ে দেশান্তরে ছুঁয়ে ছুঁয়ে থাকি
জাদুর বনস্পতি দেবো চোখ হাত মুখে
উঠাবো পাহাড়ে হাত ধরে নিয়ে যাবো
অগ্ন্যুৎপাতের সুখ উৎসমূলে
লজ্জাবতী আমাদের ছোঁয়া পেয়ে আর
লুকোবেনা মুখ তার।
সেই তুমি আজ দেশান্তরি!

অচেনা পথিক দেখে গলিত সে লাভা
বেহায়া হাসিতে তোমাদের ছোঁয়া পেয়ে
কেঁদে ওঠে লজ্জাবতী!
নদীও যে ডেকেছিল
আকাশকে সাক্ষী রেখে
ফুলও যে হেসেছিল
মৌবনে সৌরভ মোহে যদি ছুটে যাই!
জলে ও সুবাসে ডুব সাঁতারে পারিনি
অবাক গহীন থেকে তুলে আনতে
এক মুঠো সুখ স্মৃতি!
অতঃপর শব্দ এসে বলে
আমাকে আগলে রাখো ষষ্ঠ ইন্দ্রে
তাবৎ ইচ্ছেরা পাখা মেলে উড়ে যাবে
কবিতার মতো সহজিয়া জাদুর নক্ষত্রে
নীলাভ জোসনার সুখে ধুয়ে মুছে যাবে
আজন্ম জখম যতো মজ্জমান ব্যাধি
ছন্নছাড়া বেভুল আমার জানিনা কী হলো
আমি শুধু শব্দের কথাই রাখলাম।

Add Comment

Click here to post a comment

ফেসবুক পেজ

আর্কাইভ

ক্যালেন্ডার

July 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031