জীবনমঞ্চ

বৃদ্ধ বাদাম বিক্রেতা বললেন আমার ছবি তুলে ফেসবুকে ছাড়েন

রফিকুল ইসলাম সবুজ

রাজধানীর মতিঝিল এলাকায় এক বাদাম বিক্রতাকে দেখে গেলাম বাদাম কিনতে। বাদাম কেনার ফাঁকে কথা হলো বিক্রেতার।
চাচা আপনার নাম কি ?
উত্তরে চাচা: আমার নাম সেরাজ উদ্দীন।
প্রশ্ন : চাচা আপনার গ্রামের বাড়ি কোথায়?
চাচা: বাড়ি বরিশাল।
প্রশ্ন : চাচা কতো দিন হলো বাদাম বিক্রি করেন?
চাচা: তাও তো বাবা ৪/৫ বছর হবে।
প্রশ্ন: চাচা আপনার একটা ছবি তুলবো?
চাচা: তুলো বাবা। ইন্টারনেট, ফেইসবুকে দিবা নাকি?
প্রশ্ন: দিলে কোন সমস্যা?
চাচা: না বাবা ফেসবুকে ছাড়লে আমার ছেলে দেখবে, সে বড় মোবাইলে ফেসবুক চালায়।
প্রশ্ন: কোথায় থাকে আপনার ছেলে?
চাচা: না, ও ঢাকায় থাকে, সে আমার কাছে থাকে না!
প্রশ্ন: কেনো চাচা?
চাচা: গ্রাম থেকে ঢাকা আসছিলাম ছেলের ভবিষ্যতের কথা ভেবে। এখন ছেলে ঢাকার এক মেয়েকে বিয়ে করে আলাদা থাকে, আমাদের খোঁজখবর নেয় না বাবা! তাই বল্লাম ছবিটা ফেসবুকে দিতে, ও দেখুক আমার আব্বা কত কষ্ট করে দিন কাটাচ্ছে, ছবি দেখে যদি একটু মন নরম হয় ওর, একটু মায়া জন্মায় আমার উপর।

প্রিয় পাঠক চাচার কথা গুলো শুনে মনটা অনেক খারাপ হয়ে গেলো। “যেই বাবা মা সব সময় আমাদের (সন্তানের) ভবিষ্যতের কথা ভেবে নিজের জীবনকে তিলে তিলে শেষ করছে, আমাদের (সন্তানদের) কি উচিৎ না একটিবার বাবা মার ভবিষ্যতের কথা ভাবা..?

ফেসবুক পেজ

আর্কাইভ

ক্যালেন্ডার

June 2024
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930