তরঙ্গটুডে

রবির কথায় আবারো দুই বাবু, পেরিয়েছে ৩০ বছর

হ্যালোডেস্ক

০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২


‘শ্রাবণের মেঘগুলো জড়ো হলো আকাশে/ অঝরে নামবে বুঝি শ্রাবণে ঝরায়ে…’ নব্বই দশকে গলির মোড়ে কিংবা তুমুল আড্ডায় তরুণদের মুখে মুখে ফেরা এ গানটির কথা মনে আছে নিশ্চয়ই। সাড়া জাগানো ব্যান্ড ডিফরেন্ট টাচ-এর ভোকালিস্ট আলী আহমেদ বাবুর কণ্ঠে গাওয়া এই ট্রেডমার্ক গানটির স্রষ্টা ছিলেন বাংলাদেশে র‌্যাপ সঙ্গীতের পথিকৃৎ আশরাফ বাবু।

দুই বাবুর রসায়নে সৃষ্টি- দৃষ্টি প্রদীপ জ্বেলে খুঁজেছি তোমায়, স্বর্ণলতা, রাজনীতির মতো সুপার-ডুপার গানের পরও আলী আহমেদ বাবু গান থেকে নির্বাসনে দীর্ঘ ৩০ বছর! যা শ্রোতার মনে আজও বহু প্রশ্ন জাগায়। সেসব প্রশ্নের উত্তর নিয়ে এলেন তরুণ গীতিকার মিলন মাহমুদ রবি।

দুই বাবুর রসায়ন নিয়ে সম্প্রতি নির্মিত হলো ‘টিপ টিপ বৃষ্টি’ শিরোনামের একটি গান। রবির লেখা এ গানটির সুর ও সঙ্গীতায়োজন করেছেন আশরাফ বাবু। গেয়েছেন আলী আহমেদ বাবু। সাথে বাড়তি চমক হিসেবে যোগ হয়েছেন আরেক সম্ভাবনাময় কণ্ঠশিল্পী সুজানা রূপা।

নব্বই দশকের প্রথম দিকে ‘শ্রাবণের মেঘ’ অ্যালবাম রিলিজ হওয়ার পর দর্শকদের মনে স্থান পায় গানগুলো। ৩০ বছর পরও এসব গান সঙ্গীতপ্রিয় শ্রোতাদের মনে রয়ে গেছে। বর্তমান প্রজন্মের কণ্ঠে শোনা যায় গানগুল। আর এসব সুর-ছন্দের নেপথ্য কারিগর শিল্পী আশরাফ বাবু।

আশরাফ বাবু ১৯৯১ সালে তুমুল জনপ্রিয় ব্যান্ডদল ‘ডিফরেন্ট টাচ’ ছেড়ে আলী আহমেদ বাবু ও পলাশকে সাথে নিয়ে ‘অরবিট’ নামে ভিন্ন দল গঠন করেন। ‘অরবিট’ও খুব অল্প সময়ে শ্রোতার মন জয় করে নেয়।

আলী আহমেদ বাবু প্রায় এক যুগের উপরে সংঙ্গীতাঙ্গনে শ্রোতাদের জন্য অসংখ্য গান উপহার দিয়েছেন। ২০০০ সালে তিনি পাড়ি জমান কানাডার টরেন্টো শহরে। বর্তমানে তিনি দেশের নাগরিকত্ব অর্জন করে রয়ে গেছেন সেখানে। দেশের টানে, গানের টানে মাঝেমধ্যে দেশে আসেন। গানপোকা এই মানুষটি দেশ ছেড়েছেন ঠিকই তবে সুরের প্রেমে আটকে আছেন আজও। গানের সাথে সন্ধি করে চলছেন এখনো।

সম্প্রতি বাংলাদেশে এসে ৩০ বছর পর ‘টিপ টিপ বৃষ্টি’ শিরোনামের গান করেন। দীর্ঘ বিরতির পর এটিই তার প্রথম মৌলিক গানে ফেরা। মিলন মাহমুদ রবির কথায় ‘টিপ টিপ বৃষ্টি’ শিরোনামের গানটির রেকর্ডিং ও ভিডিও শ্যুটিংয়ের কাজ শেষ করে আলী আহমদ বাবু ডিসেম্বরেই ফিরে গেছেন কানাডায়।

আশরাফ বাবুর সুর ও সংঙ্গীতে গাওয়া গানটি সম্পর্কে আলী আহমেদ বাবু বলেন, “গানটির কথা ও সুর এতটাই হৃদয়ে স্পর্শ করেছে যে, না গেয়ে পারা গেলো না। গানের কথার প্রতিটি লাইন রোমাঞ্চকর। আমার মতো নিশ্চয়ই শ্রোতাদেরও ভালো লাগবে বিশ্বাস।”

‘টিপ টিপ বৃষ্টি’ গানটি সম্পর্কে গীতিকার ও সুরকার আশরাফ বাবু বলেন, “গানটিতে নব্বইয়ের দশকের একটা ফ্লেভার রয়েছে। সুর করার পর দেখলাম আরো ভালো লাগছে। এর মধ্যে আলী আহমেদ বাবুও তখন দেশে থাকায় সবকিছু ব্যাটে-বলে মিলে যায়। গানটা বাবুর কণ্ঠে ভালো লাগবে। সাথে সুজানা রূপাও বেশ প্রতিশ্রুতিশীল।”

বর্তমান প্রজন্মের সম্ভাবনাময়ী কণ্ঠশিল্পী সুজানা রূপা বলেন, “লিরিক্সটা যখন পাই তখনই গুনগুন করে গাইতে থাকি। রোমান্টিক কথা রয়েছে গানে। আমার এতোটা ভালো লেগেছে যে প্রতিদিন একবার হলেও গেয়ে ফেলি। আর এতো বড় দুজন প্রখ্যাত শিল্পীর সাথে কাজ করা আমার জন্য সৌভাগ্যের। সবটা দিয়েই চেষ্টা করেছি ভালো গাওয়ার। শ্রোতাদের কাছেও গানটি নতুনত্ব এনে দিবে।”

সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে চলা তরুণ গীতিকার মিলন মাহমুদ রবি বলেন, “এক ‘টিপ টিপ বৃষ্টি’র রাতে হঠাৎ করেই লিখে ফেলি গানটি। টিউনের জন্য আশরাফ বাবু ভাইয়ের কাছে দেই। আলি আহমেদ বাবু ভাইও দেশে থাকায় গানটি করা হয়। আশরাফ বাবু ভাইয়ের নির্দেশনায়। তবে এ গানটি দিয়েই আবার দুই বন্ধুর ৩০ বছর পর একসাথে কাজ করা। এটাও আমার জন্য আরো বেশি পাওয়া। শ্রোতাদের জন্য ভালো কিছু দিতে পারাটাই আনন্দের।”

গানটি বর্তমানে সম্পাদনার টেবিলে, শিগগিরই গানটি ইউটিউব ভিত্তিক চ্যানেল ‘নগর টিভি’ থেকে রিলিজ হবে।

ফেসবুক পেজ

আর্কাইভ

ক্যালেন্ডার

July 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031