ভ্রমন

শীতকালে ভ্রমণে যেসব বিষয়ের দিকে নজর রাখবেন

হ্যালোডেস্ক

শীতকাল ঘুরতে যাওয়ার জন্য উপযুক্ত সময়। তবে মহামারির কারণে অনেকেই এখন বাইরে ঘুরতে যেতে ভয় পাচ্ছেন। সুরক্ষিত থেকে অবশ্য ঘুরতে যেতেই পারেন। এজন্য অবশ্যই ভ্রমণের ক্ষেত্রে কয়েকটি বিষয় মেনে চলা খুবই জরুরি। করোনাভাইরাসের এ সময়ে বাইরে যেখানেই যান না কেন ব্যক্তিগত সুরক্ষার বিকল্প নেই।

আবার শীতকালে জ্বর-ঠান্ডা-কাশি বেড়ে যায়। বর্তমানে অনেকেই সাধারণ ফ্লুতে আক্রান্ত হচ্ছেন। এজন্য সতর্ক থেকেই ভ্রমণে যাওয়া উচিত। আপনি যদি ফ্লুতে ভুগে থাকেন, তবে ঘুরতে না যাওয়াই উত্তম। অনেকেই এখন দলবেঁধে ঘুরতে যাচ্ছেন কক্সবাজার, সুন্দরবন, বান্দরবান কিংবা সাজেক। কেউ যাচ্ছেন পরিবার নিয়ে। আবার কেউ বন্ধুর সঙ্গে।

তবে এ সময়ে ব্যক্তিগত সুরক্ষা এবং শীতের পোশাক ছাড়া ভ্রমণে যাওয়া ঠিক নয়। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক শীতকালে ভ্রমণে যেসব বিষয় মাথায় রাখা উচিত-

ভ্রমণের অংশ
১. অবশ্যই ভ্রমণে যাওয়ার আগে মাস্ক, গ্লাভস ও স্যানিটাইজার কিনে নিন বেশি করে। এরপর প্যাকিং করুন, যাতে এগুলো নিরাপদে থাকে।

২. শীতের পর্যাপ্ত কাপড় সঙ্গে নিয়ে নিন। পরিবারসহ গেলে শিশুদের জন্য বাড়তি পোশাক নিতে হবে। কানটুপি, মাফলারসহ ভারি কাপড় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন।

৩. এ সময় প্রসাধনীর দিকেও লক্ষ্য রাখুন। কারণ শীতে ত্বক শুষ্ক হয়ে ওঠে। এজন্য ভ্রমণে যাওয়ার সময় সঙ্গে ময়েশ্চারাইজার, লোশন, গ্লিসারিন, লিপবাম সঙ্গে রাখুন।

৪. পাহাড়ি এলাকায় ঘুরতে গেলে অবশ্যই জুতা-মোজা সঙ্গে নিন।

৫. ভ্রমণের ক্ষেত্রে দূরপাল্লার বাস বা ট্রেনে যাওয়ার সময় জানালা বন্ধ করে রাখুন। কারণ বাতাসে দ্রুত ঠান্ডা লেগে যেতে পারে। রাতে বা ভোরে ভ্রমণ না করাই ভালো। এ সময় আবহাওয়া সবচেয়ে বেশি ঠান্ডা থাকে।

৬. শীতের সময়ে ঠান্ডা-কাশি-জ্বর হওয়াটা খুবই স্বাভাবিক। এজন্য সঙ্গে কিছু ওষুধ রাখুন। বিপদে কাজে লাগবে। সঙ্গে শিশু থাকলে তার জন্যও ওষুধ রাখুন।

৭. অনেকেরই শীতে ঠান্ডায় অ্যালার্জি ও সাইনাসের সমস্যা বেড়ে যায়। যদি এমন কোনো সমস্যা থাকে, তাহলে অবশ্যই ওষুধ কিংবা নেসাল স্প্রে সঙ্গে নিয়ে নিন।

৮. যেখানেই ভ্রমণে যান না কেন, অবশ্যই খাবারের প্রতি সঠিক নজর রাখবেন। কিছু খাবার রয়েছে যেগুলো খেলে শীতের সময় শরীর গরম থাকে। এমন খাবার খেতে হবে। সঙ্গে ফল খাবেন বেশি করে। বিশেষ করে ভিটামিন-সি জাতীয় ফল।

৯. যে হোটেলে উঠবেন, সেখানকার রুম কেমন তা জেনে বুকিং দিন। রুম পরিষ্কার আছে কি-না হোটেলে উঠেই দেখে নিন। কম্বল বা লেপ পরিষ্কার কি না সেটাও লক্ষ্য রাখুন। হিটার আছে এমন রুম বুক করুন।

১০. শীতে করোনভাইরাস বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এজন্য ভ্রমণে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। বারবার হাত পরিষ্কার রাখুন। মুখে হাত লাগানো থেকে বিরত থাকুন। কারো সঙ্গে পরিচিত হওয়ার সময় হ্যান্ডশেক করা থেকে বিরত থাকুন।

১১. আপনার সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত ফোনটি সব সময় পরিষ্কার রাখুন।

Add Comment

Click here to post a comment

ফেসবুক পেজ

আর্কাইভ

ক্যালেন্ডার

June 2024
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930