কবিতা

সোহরাওয়ার্দী উদ্যান

সাময়িকী : শুক্র ও শনিবার

-সরকার মাহবুব

যতটা না উদ্যান বলে জানি
তার চেয়ে বেশি জানি, ওটা রেসকোর্স মাঠ
ওখানে রেসের ঘোড়ার সাথে উড়তো টাকা
টাকার সাথে উড়ে যেতো
প্রতিপত্তির হাওয়াই নিশান !

গড়ের মাঠের মতো কোনো প্রাচীর ছিলোনা
বর্ষার বৃষ্টিতে ওর দুর্বাগুলো প্রাণ পেতো
তুলতুলে নরম গালিচা – মনে হয় হেঁটে আসি এপার ওপার
মনে হয়, শুয়ে থাকি কোজাগরী রাতে
পূর্ণীমা চাঁদ মাখি উদোম শরীরে
আকাশে তাকিয়ে থেকে
আকাশ-থালায় নক্ষত্র পাথর গুনি
এক দুই তিন . .

তেমন আড়াল করা কোন বৃক্ষ ছিলো না
কিছু কিছু ফুল ছিলো। জবা ও গোলাপ কিছু হেজ ছিল।
কাঁটা মেন্দী, বিষল্ল করলী
জারুলের সারি ছিলো একটু তফাতে
শীল-কড়ুই ছিলো ক’টা তবে প্রাচীনআদল
আর যাই বলি, বিস্তীর্ণ মাঠ ছাড়া
তাকে উদ্যান বলার ধৃষ্টতা হয় নি তখনো !

রমনার রেসকোর্স ঊনসত্তুরে এসে
একদিন নতুন খেতাব পেলো
ক্যান্টনমেন্ট থেকে আগরতলার আসামী শেখ মুজিবকে ছাত্ররা এনে
এই মাঠে দাড়করে শরীরে জড়িয়ে দিলো
‘বঙ্গবন্ধু’র বিশাল ভূষণ !

সেই থেকে রেসকোর্সে মাঠ আর মাঠ নয়
এরপর থেকে অসংখ্য ইতিহাস প্রতিদিন।
সাত’ই মার্চে আবার এলেন তিনি
তাঁর সমস্ত শরীরে তখন সাড়েসাত কোটি
বাঙ্গালী’র তীব্র ক্ষোভের আগুন,
স্বাধীনতার সুতীব্র আকাঙ্ক্ষা !

বঙ্গবন্ধু বললেন, যার যা আছে তাই নিয়ে প্রস্তুত থাকো
এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম
এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম !
এই বিষন্ন মাঠ আর মাঠ নয়
বলাবাহুল্য কোন উদ্যান নয়
স্বাধীনতার মুক্ত মঞ্চ !

এ মাঠেই পরাস্ত পাকিরা অস্ত্র ঢেলেছে
মুক্ত মুজিব এসে মেলেছে শপথ
নৌকোর মঞ্চে দাঁড়িয়ে এখানেই
শুনেছি সবনেত্রীর মুখে বিজয়ের গান
এই মাঠ । শুধু মাঠ নয়
এ ধুধু প্রান্তর । ধুসর প্রান্তর নয়
সবুজে সবুজে ভরা এই উদ্যান
এখানেই সব প্রগতির
চাষাবাদ হবে এখন থেকেই প্রতিদিন !

Add Comment

Click here to post a comment

ফেসবুক পেজ

আর্কাইভ

ক্যালেন্ডার

July 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031