হ্যালো প্রবাস

স্বাভাবিক জীবনে ফিরছে নিউইয়র্ক, খুশিতে দিশহারা সবাই

হ্যালোডেস্ক

১৯ জুলাই ২০২১


মেহেদী রাঙা আমেজে জেগে উঠছে নিউইয়র্ক। নিউইয়র্ক সিটিতে সাম্প্রতিক সময়ে করোনায় সংক্রমণের হার ১ শতাংশেরও এরও নীচে নামার সাথে মৃত্যুর হারও সন্তোষজনকভাবে কমায় জনজীবনে স্বস্তি আসার পথে ঈদুল আজহা অন্যতম একটি অবলম্বনে পরিণত হয়েছে। নিউইয়র্ক সিটিতে গতকাল রবিবার দুপুর থেকেই বাংলাদেশি তথা মুসলিম অধ্যুষিত জনপদে তরুণ-তরুণীদের ঢল নামে।

পথচারিরা সরে গেলেই তরুণীরা টেবিল নিয়ে মেহেদীর পসরা সাজায়। মুহুর্তেই বাড়ে ভীড়। অথচ এর আগে অর্থাৎ করোনা মহামারির আগে ঈদের আগের রাতে চাঁদ রাতের ঘোষণা দিয়ে এমন মেহেদী রাঙানোর আয়োজন হয়েছে। এবারই প্রথম দুদিন আগেই তা শুরু হলো।

শতশত তরুণীদের এবং যুবতীরা রাস্তা অথবা ব্যস্ততম এলাকার পার্কিং লট কিংবা প্লাজা দখলে নেন। সন্ধ্যা গড়িয়ে রাত যত বাড়ছিল-ততই ব্যস্ততাও বাড়তে দেখা যায় এসব স্থানে। কেউ মাস্ক পরিহিত, আবার কেউ একেবারেই মাস্ক ছাড়া।

এই সিটির অভিবাসী সমাজের প্রায় সকলেই টিকা নিয়েছেন। সেজন্যে কেউই সংক্রমণের আশংকায় নেই। ঈদ আমেজ পরিলক্ষিত হয় প্রতিটি দোকানেই। ল্যাটেস্ট ডিজাইনের পোশাক-আশাকের সাথে স্বর্ণের দোকানেও ভীড় দেখা গেছে রাত অবধি। গ্রাহকের উল্লেখযোগ্য একটি সংখ্যা ছিলেন বাংলাদেশিরা।

ঈদের নামাজের কর্মসূচি ঘোষণা দেয়া হয়েছে মসজিদসমূহ থেকে। তিন হাজার মসজিদের প্রায় সবগুলোর নামাজ অনুষ্ঠিত হবে মসজিদ সংলগ্ন মাঠে অথবা রাস্তার ওপর। ঈদ জামাতের নিরাপত্তায় স্থানীয় প্রশাসন বিশেষ ব্যবস্থা অবলম্বনের ঘোষণা দিয়েছে। এছাড়াও নামাজিদের গাড়ি পার্ক করারও ক্ষেত্রেও আইন শিথিল করা হয়েছে বলে জানা যায়।

এদিকে, ঈদ জামাত শেষ করেই অনেকে নিকটস্থ খামারে যাবেন পছন্দের পশু কোরবানির জন্যে। এরপর প্রকাশ্য মাঠে কুরবানীর মাংস প্রসেসিংয়ের পর ভাগ-বাটোয়ারা করা হবে।

ফেসবুক পেজ

আর্কাইভ

ক্যালেন্ডার

June 2024
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930